প্রকাশিত সংবাদ সম্বন্ধে স্পষ্টীকরণ

“ম্যালেরিয়া, জলবাহিত রোগ ছড়াচ্ছে শিকারিবাড়ি অঞ্চলে” এই শিরোনামে ২৯ মে ২০১৭ ইং দৈনিক সংবাদ পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ স্বাস্হ্য ও পরিবার কল্যাণ দপ্তরের নজরে এসেছে।

দপ্তরের পক্ষ থেকে জানানো যাচ্ছে যে, আমবাসা প্রাথমিক স্বাস্হ্যকেন্দ্রের অধীনে শিকারিবাড়ির সত্যরাম কে পি উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে গত ২৫ মে দশম শ্রেণীর ছাত্র নমেন মোহন ত্রিপুরা মনু গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি হয় এবং সেখানে প্রয়োজনীয় চিকিৎসার পর তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। গত ২৮ মে ঐ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী প্রমিতা রিয়াং, ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী মান্যবতী রিয়াং জ্বর নিয়ে কুলাই জেলা হাসপাতালে ভর্তি হয় এবং তাঁদের রক্তে ম্যালেরিয়ার জীবাণু পাওয়া যায়। গত ২৯ মে ধলাই জেলার মুখ্য স্বাস্হ্য আধিকারিক মেডিক্যাল টিম নিয়ে সত্যরাম কে পি উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে যান। সেখানে আর কোনও ছাত্রছাত্রী জ্বর ও ডায়েরিয়ায় আক্রান্ত ছিল না।

উল্লেখ্য, এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর এই সময় কালে আবহাওয়াজনিত কারণে ম্যালেরিয়ার প্রাদুর্ভাব বেশি ঘটে। তবে এবছর গতবারের চেয়ে ম্যালেরিয়া সংক্রমণ তুলনামূলক কম। পরিস্হিতি বর্তমানে নিয়ন্ত্রণে এবং নজরদারি চলছে।

ম্যালেরিয়াপ্রবণ এলাকায় চিকিৎসক ও স্বাস্হ্যকর্মীর সংখ্যা বৃদ্ধি করা হয়েছে। ম্যালেরিয়া রোগের চিকিৎসার ওষুধ ও রক্ত পরীক্ষার আর.ডি.কিট পর্যাপ্ত পরিমাণে রয়েছে।

শিকারিবাড়ি অঞ্চলে ম্যালেরিয়া ও জলবাহিত রোগ ছড়াচ্ছে বলে যে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে তা সম্পূর্ণ সত্য নয়। আতঙ্কিত হবার কোনও কারণ ঘটেনি।